Source: https://metode.org/issues/document-revistes/to-what-extent-do-pseudosciences-affect-teachers.html
in

ব্ল্যাক ম্যাজিক | কালো জাদু (তৃতীয় পর্ব)

স্পেল বা মন্ত্র কাজ করার জন্যে কিন্তু যা ইচ্ছা পড়লেন আর কাজ হয়ে যাবে তা না। ভাবছেন যে, কোরআনের দুটো আয়াত পড়লেন বা বেদ থেকে দুটো ভার্স পড়লেন কিংবা তাওরাতের যেকোনো প্যাসেজ পড়লেন আর আপনি হাওয়ায় ভাসতে শুরু করলেন। সেভাবে কোনো কিছুই কাজ করে না। পৃথিবীতে এমন কিছুই নেই যেটা কোনো কারণ ছাড়া কাজ করে বা কোনো নিয়মের মধ্যে বাস করে না। সবকিছুরই Cause and Effect রয়েছে। আবার সবকিছুই নিয়মের মধ্যে সংগঠিত হয়।

যারা এর প্রথম পর্ব পড়েন নি তারা এখান থেকে পড়ে নিতে পারেন।

অনেক মানুষকেই হয়তো বলতে শুনেছেন যে, সূরা ইখলাস যদি কেউ উলটো করে তিনবার পড়ে তাহলে তার মুখ দিয়ে আগুন বের হবে। আমি অন্য কিছু শুনেছি। অনেকেই অনেক কিছু শুনেছেন। এটা সম্পূর্ণ হাস্যকর একটা তথ্য। সূরা ইখলাসকে উলটো করে তিনবার কেনো হাজারবার পড়লেও কিছুই হবে না।

যারা এর দ্বিতীয় পর্ব পড়েন নি তারা এখান থেকে পড়ে নিতে পারেন।

কেনো জানেন? এই জাদুবিদ্যা মূলত ছয়টি মূল কর্মের দ্বারা সাধিত হয়। এই ছয়টি অংশ একত্রে করা মানেই জাদুবিদ্যা করা সম্ভব বা যেকোনো মন্ত্র কাজ করবে। এই ছয়টি অংশ হচ্ছে,

  • দৃষ্টি বা দেখাঃ এক্ষেত্রে সেটা একটি বৃত্ত হতে পারে কিংবা চতুর্ভুজ, ত্রিভুজ, ভেসেল, বাতি, দড়ি, ইত্যাদি যেকোনো কিছুই হতে পারে।
  • শব্দঃ এক্ষেত্রে মন্ত্র বা স্পেলটাকেই শব্দ হিসেবে বলা হচ্ছে।
  • গন্ধঃ এক্ষেত্রে যেকোনো আগরবাতি কিংবা ঘ্রাণযুক্ত ধোঁয়াকেই বোঝানো হচ্ছে।
  • স্বাদঃ এক্ষেত্রে যেকোনো স্যাক্রামেন্ট বা স্বাদযুক্ত পিউরিফিকেশন বস্তুকে বোঝানো হচ্ছে।
  • স্পর্শঃ এক্ষেত্রে সেটা একটি বৃত্ত হতে পারে কিংবা চতুর্ভুজ, ত্রিভুজ, ভেসেল, বাতি, দড়ি, ইত্যাদি যেকোনো কিছুই হতে পারে। উল্লেখ্য যে, এখানে এসব অঙ্কনের মাঝে বসা বা স্পর্শ করে থাকাই বোঝানো হয়েছে।
  • মাইন্ড বা মনঃ এক্ষেত্রে উপরের সবকিছুর সাথে আপনার মনের সংযোগ বা বিশ্বাসকেই বোঝানো হয়েছে।

উপরের এই ছয়টি কাজ বা অবস্থার বর্ণনা দেয়া হয়েছে গোয়েটিক ম্যাজিক লিটারেচারের মধ্যে। এর বর্ণনা দিয়েছেন স্বয়ং কিং সলোমন। কিং সলোমন উনার লেসার কি অফ সলোমোনের প্রথম পর্ব আরস গোয়েটিয়াতে এই সম্পর্কে বর্ণনা করেছেন। কিং সলোমনকে তো চেনেন তাই না? 

উনি হচ্ছেন ইসরায়েলের তৃতীয় রাজা যিনি মূলত রাজা ডেভিডের পুত্র। কোরআনে তাঁকে বলা হয়েছে সুলাইমান (আঃ) হিসেবে যিনি দাউদ (আঃ) এর পুত্র। কিং সলোমন অনেক ধনী এবং বুদ্ধিমান রাজা ছিলেন। তিনি শুধুমাত্র পার্থিব বুদ্ধিতেই পারদর্শী ছিলেন না বরঞ্চ তিনি অলৌকিক বুদ্ধিতেও পারদর্শী ছিলেন।

তার লেখা বেশ কিছু বই, ডকুমেন্টারি রয়েছে যেখানে তিনি বিভিন্ন স্পেল বা মন্ত্র, রিচ্যুয়াল, সিজিল, তাবিজ, ইত্যাদি লিখে রাখতেন। তো সেই বইগুলোর মধ্যে একটি হচ্ছে, আরস গোয়েটিয়া। আরস গোয়েটিয়া হচ্ছে, কিং সলোমনের ল্যামিগেটন ক্ল্যাভিকুলা সলোমনিস বইয়ের চারটি পর্বের প্রথম পর্ব।

বইটিতে রয়েছে দুইশ’ ডায়াগ্রাম এবং সিজিল (সিল), যেগুলোর মাধ্যমে স্পিরিটদের ইনভোকেশন ও কনভোকেশন করা সম্ভব। একইসাথে সিলগুলো নেক্রোম্যান্সি, ব্ল্যাক আর্ট এবং উইচক্রাফটেও ব্যবহৃত হয়।

বইটি মূলত ল্যাটিন ও অরিজিনাল সলোমোনিস রেজিসের ম্যানুস্ক্রিপ্ট থেকে অনুবাদ করা হয়েছে। বইটির অরিজিনাল কপি পাওয়া যাবে ব্রিটিশ মিউজিয়াম, লন্ডনে।
লেমিগেটন, হচ্ছে ক্ল্যাভিকুলা সলোমোনিস রেজিস বইয়ের সম্পূর্ণ অংশ। অর্থাৎ এই বইয়ের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে আরো চারটি বই। এই চারটি বইয়ের মধ্যে প্রথম ভলিউম হচ্ছে আরস গোয়েটিয়া, দ্যা বুক অফ ইভিল স্পিরিট।

বইটির বাংলা অনুবাদ করার কাজ চলছে। খুব শীঘ্রই হয়তো সেই অনুবাদের পিডিএফ কপি আপনারা ডাউনলোড করতে পারবেন।

এই বইয়ের যেসব তথ্য দেয়া আছে সেগুলো অরিজিন্যাল ম্যানুস্ক্রিপ্ট থেকে সংগৃহীত আর তাই এই বইয়ে সব ধরণের তথ্য সম্পূর্ণরূপে দেয়া আছে। কিন্তু বর্তমানে ইন্টারনেটে এই বইয়ের কিছু কপি বের হয়েছে যেগুলোতে এই বইয়ের অংশবিশেষ, খুবই কার্যকরী কিংবা সম্পূর্ণ বই হিসেবে ডাউনলোডের জন্য দেয়া হচ্ছে। সেসব বই থেকে সাবধান থাকুন।

কারণ, আপনি যদি ভুল বইটি পড়েন তাহলে সেটার সিজিল, ডেমোনিক ইনভোকেশন, কনভোকেশনব, ইভোকেশন, স্পিরিচুয়্যাল অ্যাড্রেস, ম্যাজিক স্পেল কোনোটাই কাজ করবেনা। বরঞ্চ একাধিকবার ভুল চেষ্টা করার ফলে হিতে বিপরীত হতে পারে। আর তাই, ভুল বই থেকে দূরে থাকুন।

বইটি পড়ার পর হয়তো আপনি অনেক সিজিল (সিল), তালিসমান সম্পর্কে অবহিত হবেন। কিন্তু মনে রাখবেন যে, সেগুলো তৈরির ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। এটাও মনে রাখবেন যে, সঠিক আর শুদ্ধ তালিসমান এবং সিজিল তৈরি করার জন্য দরকার পড়ে স্বর্ণ অথবা সিলভার।

অর্থাৎ, স্বর্ণ অথবা সিলভারের মাধ্যমেই সিজিল বা তালিসমান তৈরি করতে হয়। পূর্বে সিলভার অথবা স্বর্ণের বদলে লৌহ ব্যবহার করা হতো। যদিও এটা বর্তমানে কেউ ব্যবহার করে না। কিন্তু তারমানে এই নয় যে, লোহাতে বা লোহা দ্বারা তালিসমান তৈরি করা যাবে না! লোহা দ্বারাও তালিসমান তৈরি করা যাবে। তালিসমান কিংবা সিজিল তৈরির জন্য সবচেয়ে বেশি যেটা কার্যকরী হয় সেটা হচ্ছে, ‘ভার্জিন পার্চমেন্ট পেপার’, যেটা তৈরি হয় নতুন জন্ম নেয়া ভেড়া বা মেষের চামড়া থেকে।

তো বিশেষ ক্ষেত্রে পাঠক পাঠিকাদের জন্য এসব বস্তু খুঁজে পাওয়া বা সংগ্রহ করা কঠিন হয়ে পড়তে পারে, আর তাই এক্ষেত্রে আপনি যেকোনো কিছুই ব্যবহার করতে পারেন। তবে চেষ্টা করবেন সবচেয়ে পবিত্র জিনিসই ব্যবহার করার জন্য ও ব্যবহারের পূর্বে শুদ্ধ করে নেয়ার।


পুনশ্চ একঃ ব্ল্যাক ম্যাজিক বা কালোজাদুর নাম শুনলে বা এটা সম্পর্কে জানলেই যে গুনাহ হবে বা পাপ হবে, এটা ভ্রান্ত ধারণা। জ্ঞানার্জনে পাপ হয় না, পাপ হবে যদি নিষিদ্ধ কিছু করতে যান তাহলেই।

পুনশ্চ দুইঃ এখানে ধর্মের গোঁড়ামি নিয়ে আসবেন না। গোঁড়াদের কিছু বোঝানো যায় না। তাই বোঝানো ছেড়ে দিয়েছি অনেক আগেই।

প্রথম প্রকাশিত হয়েছে, প্যারাসাইকোলজি রিসার্চ সেন্টার বাংলাদেশের ফেসবুক গ্রুপে

8 Comments

Leave a Reply
  1. I in addition to my pals ended up digesting the best pointers found on your site while at once got a horrible suspicion I had not thanked you for those secrets. All the ladies happened to be glad to read all of them and already have in reality been enjoying those things. I appreciate you for actually being really kind and also for considering this kind of perfect resources millions of individuals are really needing to be informed on. My personal honest apologies for not saying thanks to you sooner.

  2. I want to get across my affection for your kindness for folks that have the need for assistance with this particular theme. Your very own commitment to getting the message up and down turned out to be exceptionally effective and have usually allowed most people just like me to realize their ambitions. Your new useful tutorial signifies this much to me and especially to my office colleagues. Regards; from everyone of us.

  3. Thank you for every one of your effort on this web site. My mum loves working on internet research and it’s really simple to grasp why. A lot of people hear all regarding the powerful method you offer insightful tips on your website and in addition improve response from other people about this concern then our girl is actually discovering so much. Have fun with the rest of the year. You’re doing a really good job.

  4. Thank you so much for providing individuals with an exceptionally special chance to check tips from this blog. It can be very brilliant plus jam-packed with amusement for me personally and my office fellow workers to search your website really 3 times a week to find out the newest guides you have. And of course, I am also actually fulfilled considering the sensational guidelines you give. Some two tips in this article are rather the simplest I have had.

  5. Thank you a lot for giving everyone an exceptionally terrific chance to check tips from this site. It is usually so pleasing and jam-packed with a good time for me and my office co-workers to visit your website a minimum of thrice a week to learn the fresh tips you will have. And indeed, I’m just always motivated with your brilliant secrets served by you. Certain 4 facts in this post are indeed the very best we have all ever had.

  6. Thank you for all of your effort on this website. Gloria loves doing research and it is easy to understand why. Almost all notice all concerning the powerful method you offer powerful guides on this website and in addition increase response from visitors on that area of interest and our favorite daughter is always becoming educated a great deal. Take pleasure in the remaining portion of the year. You are always doing a wonderful job.

  7. A lot of thanks for all of the effort on this site. Kim enjoys setting aside time for investigation and it’s really obvious why. We know all of the dynamic form you convey very helpful steps on your website and in addition encourage response from website visitors about this concern and our own princess is undoubtedly studying a whole lot. Have fun with the remaining portion of the year. You are performing a useful job.

  8. I would like to show thanks to you for rescuing me from this type of crisis. Just after scouting through the world wide web and seeing strategies which were not productive, I thought my life was well over. Existing devoid of the solutions to the difficulties you have sorted out by way of your website is a crucial case, as well as ones which may have in a wrong way damaged my entire career if I hadn’t discovered your blog. The competence and kindness in controlling the whole lot was crucial. I don’t know what I would have done if I had not come across such a point like this. I can at this point look forward to my future. Thank you so much for this professional and amazing help. I won’t think twice to recommend the blog to anyone who wants and needs recommendations on this subject.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ব্ল্যাক ম্যাজিক | কালো জাদু (দ্বিতীয় পর্ব)

জাপানে আইটি খাতে ক্যারিয়ার গড়ুন