Source: https://www.timeoutdubai.com/news/383495-dry-night-tonight-in-dubai-for-islamic-new-year
in

দুবাইয়ে আইটি খাতে ক্যারিয়ার গড়ুন

দুবাই পৃথিবীর সবচেয়ে উন্নত দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম। ব্যবসা ও পর্যটন কেন্দ্র হিসেবে দুবাই সারা বিশ্বে সুপরিচিত। দুবাইয়ে আইটি খাতে ক্যারিয়ার গড়ার জন্যে অনেক ধরনের চাকরি রয়েছে, যা সে দেশের দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতি ও কর্মসংস্থানের সুব্যবস্থাকেই প্রতিনিধিত্ব করে। দুবাইয়ের আইটি খাতে ক্যারিয়ার বেশ উজ্জ্বল। চলুন আজকে জানা যাক, কীভাবে দুবাইয়ে আইটি খাতে ক্যারিয়ার গড়ে তোলা যায়।

দুবাইয়ে সাধারণত সপ্তাহে পাঁচদিন ও প্রতিদিন আট ঘন্টা করে কাজ করতে হয়। অন্যান্য মুসলিম দেশগুলোর মতোই শুক্রবার ও শনিবার এখানে কাজের ছুটি থাকে। এখানকার নারী ও পুরুষের অফিশিয়াল ড্রেসকোড ইউরোপিয়ান দেশগুলোর মতোই।

দুবাইয়ে কাজ করতে হলে আপনার দুবাইয়ের ভিসা, পারমিট ও অন্যান্য কাগজপত্র থাকা লাগবে। এর মধ্যে তিন থেকে ছয় মাস মেয়াদী ভ্যালিড পাসপোর্ট ও একইসাথে ট্রাভেল ইনস্যুরেন্সের কাগজপত্রও থাকতে হবে। আপনি যদি দুবাইয়ে বসবাস করতে চান, সেজন্যও আপনাকে দুবাইয়ের পাসপোর্ট সংগ্রহ করতে হবে। আর সরাসরি ওয়ার্ক পারমিট ভিসায় দুবাইয়ে কাজের জন্য যেতে চাইলে আপনার স্পন্সর আপনাকে পাসপোর্ট সংগ্রহ করে দেবেন।

দুবাইয়ে কাজ শুরু করার পূর্বে থাকার বন্দোবস্ত করে নেয়া উচিত। দুবাইয়ে চাকরির ক্ষেত্রে সাধারণত উচ্চ দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার উপর বেশি নজর দেয়া হয়। খেয়াল রাখবেন যেনো আপনার সিভি ও রিজিউম অতি যত্ন সহকারে তৈরি করা হয়। সাধারণত যেকোনো চাকরির ক্ষেত্রেই, ফোন কল বা ভিডিও কলের মাধ্যমেই ইন্টারভিউ নেয়া হয়। সাধারণত প্রথম ইন্টারভিউর পরেই আপনার ফলাফল সরাসরি জানিয়ে দেয়া হবে।

দুবাইয়ে যেকোনো আইটি খাতের চাকরিতে পাঁচ বছরের অভিজ্ঞতাপূর্ণ একজন কর্মীর মাসিক গড় বেতন হয়ে থাকে ২৫ হাজার থেকে ৪০ হাজার দিরহাম। অবশ্যই অভিজ্ঞতা, দক্ষতা ও বয়সের উপর ভিত্তি করে এই বেতন কাঠামোতে পরিবর্তন আসতে পারে। বেশিরভাগ কোম্পানিই  বেতনের পাশাপাশি বাসস্থান, খাবার ও ভ্রমণের খরচ দিয়ে থাকে। দুবাইয়ে আইটি খাতে চাকরির অভাব নেই বললেই চলে। চলুন দেখা যাক, কোন কোন পদে দুবাইয়ের আইটি খাতে  ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব ও সেক্ষেত্রে কী কী দক্ষতার প্রয়োজন হবে।

লিড রিঅ্যাক্ট অথবা নোড জেএস ডেভেলপার

এই পদে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার যেসব দক্ষতা থাকা লাগবে সেগুলো হচ্ছে,

  • টেকনিক্যাল লিডার হিসেবে অভিজ্ঞতা
  • বিভিন্ন প্রোগ্রামিং ভাষা ও সেগুলোর ফ্রেমওয়ার্ক
  • মাইক্রোসার্ভিসেস ও ওপেনশিফট
  • এডব্লিউএস, এজ্যুর ও গুগল ক্লাউড
  • কোড কনফিগারেশন ম্যানেজমেন্ট ও লার্জ ওয়েবসাইট এবং ইকমার্স ম্যানেজমেন্ট
  • ম্যাঙ্গো ডিবি, কাউচ ডিবি ও অন্যান্য ডেটাবেজ প্লাটফর্ম
  • গিটহাব, নেক্সাস রেপোজিটোরি

ইন্টিগ্রেশন ও স্ন্যাপলজিক ডেভেলপার

এই পদে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার যেসব দক্ষতা থাকা লাগবে সেগুলো হচ্ছে,

  • অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার হিসেবে ৫ থেকে ৭ বছরের দক্ষতা
  • স্ন্যাপলজিক ও আইপ্যাস ফ্রেমওয়ার্ক
  • স্ন্যাপলজিক ফ্রেমওয়ার্ক ও পাইপলাইন ডেভেলপমেন্টের উপর ২ থেকে ৩ বছরের অভিজ্ঞতা
  • এসওএ আর্কিটেকচার, হাই ট্র্যাফিক সিস্টেম ও সোপ স্টাইল ওয়েব ডেভেলপমেন্ট
  • জেসন, এক্সএমএল ও এক্সপাথ
  • এপিআই, সফটওয়্যার ডিজাইন ও অ্যালগরিদম

ফুল স্ট্যাক জাভা ডেভেলপার

এই পদে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার যেসব দক্ষতা থাকা লাগবে সেগুলো হচ্ছে,

  • জাভা, জেটুইইই, অ্যাঙ্গুলার জেএস, নোড, জেএসপি, স্প্রিং, হাইবারনেট, স্ট্রাটস এবং এক্সএমএল
  • ডেটা মাইগ্রেশনের উপর ১ বছরের অভিজ্ঞতা
  • অ্যানালিটিক্যাল ও রিলেশিনশিপ ম্যানেজমেন্ট
  • টেকনিক্যাল ডকুমেন্টেশন ও কনটেন্ট ক্রিয়েশনের উপর ২ বছরের অভিজ্ঞতা
  • ইন্টারেফেস ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট
  • অ্যাজাইল ফ্রেমওয়ার্ক

সিনিয়র সফটওয়্যার ডেভেলপার ইন জাভা/মিডলওয়্যার

এই পদে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার যেসব দক্ষতা থাকা লাগবে সেগুলো হচ্ছেঃ

  • কন্টিনিউয়াস ইন্টিগ্রেশন কনটেন্টের উপর ২ থেকে ৩ বছরের অভিজ্ঞতা
  • ইউজার এক্সপেরিয়েন্স ও ইউজার ইন্টারফেসের উপর ২ থেকে ৩ বছরের অভিজ্ঞতা
  • জাভা ও মিডলওয়্যার প্রোগ্রামিংয়ের উপর কমপক্ষে ৮ বছরের অভিজ্ঞতা
  • মাইক্রোসার্ভিস আর্কিটেকচার
  • কি ফ্রেমওয়ার্ক ও ডেটাবেজ
  • মেমোরি টিউনিং টুলস ও গিটহাব রেপোজিটরি

জাভা ও পাইথন ডেভেলপার

এই পদে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার যেসব দক্ষতা থাকা লাগবে সেগুলো হচ্ছেঃ

  • পাইথন ও জাভা প্রোগ্রামিংয়ে ৪ থেকে ৮ বছরের অভিজ্ঞতা
  • মাইক্রোসার্ভিসেস ও কাউচবেজ নোসিক্যুয়েল সার্ভিসেস
  • জেইইই ও ডেটাবেজ
  • স্প্রিং ফ্রেমওয়ার্ক, কোর, এমভিসি, সিকিউরিটি, রো, ওয়েব সার্ভিসেস এবং ওয়েব ফ্লো
  • জেপিএ হাইবারনেট ও ওরাকল
  • সোপ স্টাইল ওয়েব ডেভেলপমেন্ট, এক্সিস ও রেস্ট

সিনিয়র বিগ ডেটা ইঞ্জিনিয়ার

এই পদে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার যেসব দক্ষতা থাকা লাগবে সেগুলো হচ্ছে,

  • হ্যাডপ ও হ্যাডপ ইকোসিস্টেমের উপর ৬ থেকে ১০ বছরের অভিজ্ঞতা
  • ক্লাউড এনভায়রনমেন্ট ও মাইক্রোসফট এজ্যুর
  • কাউচবেজ নোসিক্যুয়েল সার্ভিসেস ও ম্যাংগো ডিবি
  • ডেটা লেক সাপোর্ট ও আর্কিটেকচার
  • ডেটা কনফিগারেশন, ম্যানেজমেন্ট, অথোরাইজেশন এবং সিকিউরিটি
  • এলডিএপি, ডেটা ক্যাটালগ, ডেটা ট্রেসঅ্যাবিলিটি এবং লিনেজ

সিনিয়র মাইক্রোস্ট্র্যাটেজি ইঞ্জিনিয়ার

এই পদে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার যেসব দক্ষতা থাকা লাগবে সেগুলো হচ্ছে,

  • মাইক্রোস্ট্র্যাটেজি ১০এক্স ডেভেলপার
  • ভিজ্যুয়াল ইন্সাইট, অবজেক্ট ইন্ট্রেগ্রিটি, এন্টারপ্রাইজ ম্যানেজার
  • ওরাকল এক্সাডেটা ও হ্যাডপ
  • ইটিএল ইনফরমেটিকা ও অ্যাজাইল ফ্রেমওয়ার্ক
  • ডেস্কটপ ও মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপার হিসেবে ৩ বছরের অভিজ্ঞতা
  • বিগ ডেটা অ্যাপ্লায়েন্স ও পাইথন এবং আর প্রোগ্রামিং

ক্লাউড আর্কিটেক্ট

এই পদে ক্যারিয়ার গড়তে হলে আপনার যেসব দক্ষতা থাকা লাগবে সেগুলো হচ্ছে,

  • মাইক্রোসফট এজ্যুর ক্লাউড ইনফ্রাস্ট্রাকচার ও ভিনেট ক্লাউড
  • ওরাকল, ইসকিউএল ডেটাবেজ ও ভার্চুয়াল মেশিন
  • ট্র্যাফিক ম্যানেজার ও এপিআই গেটওয়ে
  • গিটহাব রেপোজিটরি, স্যাস, প্যাস, ল্যাস, ফ্যাস ইত্যাদি
  • পাওয়ার শেল স্ক্রিপ্টিং ও থার্ড পার্টি মনিটরিং টুলস
  • উইন্ডোজ ও লিনাক্স বেইজড ক্লাউড ম্যানেজমেন্ট প্লাটফর্ম
  • প্রাইভেট ক্লাউড, মাল্টি ক্লাউড, পাবলিক ক্লাউড এবং হাইব্রিড ক্লাউডের উপর কমপক্ষে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা

One Ping

  1. Pingback:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ভ্রমণে বেরিয়ে আয় করুন

ব্ল্যাক ম্যাজিক | কালো জাদু (প্রথম পর্ব)