Source: https://www.blueday.com/using-store-tasks-to-create-better-customer-experiences/
in ,

রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার উপায়

যদি ব্যবসায় শিক্ষা, অর্থনীতি কিংবা ম্যানেজমেন্টে আপনার আগ্রহ থাকে, তাহলে আপনি একজন রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে পারেন। একজন রিটেইল ম্যানেজার মূলত যেকোন পাবলিক অথবা প্রাইভেট কোম্পানি কিংবা যেকোনো রিটেইলস আউটলেট ও স্টোরের ম্যানেজমেন্ট খাতের দায়িত্ব পালন করে থাকেন। কোম্পানি বা ব্যবসার ম্যানেজমেন্ট, অর্থনৈতিক ও রিসোর্সের কাজ করে থাকেন তিনি। চলুন জেনে আসি, কীভাবে একজন রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব।

রিটেইল ম্যানেজার পদটি আপনার জন্যে উপযুক্ত কি?

একজন রিটেইল ম্যানেজারকে সেলস ম্যানেজার কিংবা রিটেইল সেলস ম্যানেজার হিসেবেও আখ্যায়িত করা যায়। তিনি বিভিন্ন বিভিন্ন কোম্পানির রিসোর্স, ম্যানেজমেন্ট ও অর্থনৈতিক খাতের দেখাশোনা করেন। একজন রিটেইল ম্যানেজারের বাৎসরিক বেতন ১০ লক্ষ টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ৫০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত হতে পারে। কিন্তু এর বিপরীতে আপনাকে অনেক কষ্ট করতে হবে। রিটেইল আউটলেট ও স্টোরের সুপারভিশন, কোম্পানির ক্ষেত্রে ম্যানেজমেন্ট, স্টাফ হায়ারিং, রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট, সেলস এবং স্টকসহ আরো অনেক ধরণের কাজ রয়েছে একজন রিটেইল ম্যানেজারের।

সুতরাং ভেবে দেখুন এই পদে আপনি ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন কিনা। এই পদটি আপনার প্যাশন ও দক্ষতার সাথে কতটুকু উপযুক্ত, তা নিয়েও ভেবেচিন্তে সিদ্ধান্ত নিন।

একজন রিটেইল ম্যানেজারের ক্যারিয়ার কেমন হতে পারে?

একজন রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়ার পূর্বে আপনি, সেলস পার্সন, রিসোর্স ম্যানেজার, আউটলেট সুপারভাইজার, ডিজিটাল মার্কেটার, রিটেইল সেলস ম্যানেজার অথবা কোম্পানি সেক্রেটারির চাকরি দ্বারা ক্যারিয়ার শুরু করতে পারেন। উপরোক্ত পদগুলো থেকে অভিজ্ঞতা অর্জন করে রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।

কোম্পানি ও আউটলেটভেদে একজন রিটেইল ম্যানেজারের কাজ ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে। যদিও বেশিরভাগ কোম্পানিতে বা আউটলেটে, একজন রিটেইল ম্যানেজারকে যেসব কাজ করতে হয়, সেগুলো হচ্ছে,

১. কোম্পানি ও আউটলেটের আইনের সাথে সবসময় আপ টু ডেট থাকা।

২. বাৎসরিক রিপোর্ট তৈরি করা।

৩. বিভিন্ন আউটলেট মিটিং সংঘটিত করা।

৪. আউটলেটের দেখাশোনা করা ও সুশৃঙ্খলভাবে তা সম্পন্ন করার দিকে খেয়াল রাখা।

৫. শেয়ারহোল্ডারদের ও স্টেকহোল্ডারদের দিকে খেয়াল রাখা।

৬. কোম্পানি হাউস ও স্টক এক্সচেঞ্জে কোম্পানির শেয়ারের দিকে খেয়াল রাখা।

৭. অডিটর ও বিভিন্ন ডিপার্টমেন্টের কাজের অগ্রগতির দিকে খেয়াল রাখা।

৮. শেয়ার অপশন ও পে-স্কেল মেইনটেনেন্সের দিকে নজর দেওয়া।

৯. স্বাস্থ্য, সুরক্ষা, নিরাপত্তা, প্রোপার্টি এবং জেনারেল ম্যানেজমেন্টের দায়িত্ব পালন করা।

একজন রিটেইল ম্যানেজারের কিছু সাধারণ দক্ষতা থাকা উচিৎ। সেগুলো হচ্ছে,

১. জটিল বিষয় নিয়ে চিন্তাভাবনা করার দক্ষতা থাকতে হবে।

২. বিভিন্ন সমস্যায় দ্রুত সমাধান বের করার ক্ষমতা থাকতে হবে।

৩. যেকোনো বিষয়ে আস্থা রাখার মতো মন মানসিকতা থাকতে হবে।

৪. বিভিন্ন পারিপার্শ্বিক অবস্থায় খাপ খাওয়ানোর দক্ষতা থাকতে হবে।

৫. অসাধারণ যোগাযোগ দক্ষতা থাকতে হবে।

৬. যেকোনো বিষয়ে বিচক্ষণতার সাথে নেগোসিয়েশন করার দক্ষতা থাকতে হবে।

৭. অসাধারণ ইন্টারপার্সোনাল দক্ষতার অধিকারী হতে হবে।

শুরুতে ছোটোখাটো কোম্পানিতে রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে কাজ করুন

যদি আপনি রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে কোনো কোম্পানি বা স্টোর থেকে ইন্টার্নি করে থাকেন, তাহলে ছোটোখাটো কোম্পানি বা স্টোরে কাজ করার প্রয়োজন পড়বে না। আর যদি আগে কোথাও ইন্টার্নশিপ না করে থাকেন, তাহলে বড় কোম্পানিতে রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে কাজ করার পূর্বে ছোটোখাটো কোম্পানিতে কাজ করুন। এতে অভিজ্ঞতা এবং শিক্ষা দুইই লাভ করতে পারবেন।

রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে বড় কোম্পানিতে চাকরি খুঁজুন

ছোটোখাটো কোম্পানিতে বা আউটলেটে চাকরি করার পর, বড় বড় কোম্পানির দিকে চলে আসুন। তবে খেয়াল রাখবেন, যেন কাজের দক্ষতা ও যোগ্যতা দুইই বজায় থাকে। অনেক সময়েই দেখা যায়, ছোটোখাটো কোম্পানিতে কাজ করার জন্যে যেসকল দক্ষতার প্রয়োজন পড়ে, বড় কোম্পানির ক্ষেত্রে তার চেয়ে কয়েকগুণ বেশি দক্ষতার প্রয়োজন পড়ে। কারণ, বড় কোম্পানিগুলোতে বা আউটলেটে কাজের ক্ষেত্রও বড় হয়।

বড় বড় কোম্পানিগুলোতে বা আউটলেটে কাজ পাওয়ার জন্যে ইনডিড, লিংকডিন, মনস্টার, গ্লাসডোরের মতো ওয়েবসাইটগুলোতে চাকরী খুঁজতে পারেন। এগুলোতে প্রফেশনালি চাকরি খোঁজা যায়। তবে মনে রাখবেন, বড় কোম্পানিগুলোতে চাকরি পেতে হলে আপনাকে আরো বেশি জানতে হবে। কার্যপদ্ধতি ও কৌশলে আরো পারদর্শী হতে হবে।

বিভিন্ন পেশাদার প্রতিষ্ঠান ও কমিউনিটিতে যোগ দিন

রিটেইল ম্যানেজারদের জন্য অনলাইনে অনেক ধরণের প্রফেশনাল অরগানাইজেশন, কমিউনিটি ও ফোরাম রয়েছে। সেগুলোতে যোগদান করতে পারেন। যদি কখনো কিছু নিয়ে সমস্যায় পড়েন, তাহলে সেসব ফোরাম থেকে সাহায্য পেতে পারবেন। তাছাড়া অনলাইন ফোরাম এবং কমিউনিটির মিটআপে যোগদান করলেও অনেক শিক্ষা এবং দক্ষতা অর্জন করা যায়।

একজন রিটেইল ম্যানেজারের কী ধরণের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে?

একজন রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করার পূর্বে, আপনাকে বিজনেস ম্যানেজমেন্ট, অর্থনীতি, রিসোর্স ম্যানেজমেন্ট এবং মার্কেটিংসহ বিভিন্ন খাতের ভিন্ন ভিন্ন বিষয়ের উপর কমপক্ষে ২ থেকে ৪ বছরের অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে।

যে কারণে রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়বেন

প্রযুক্তির এই যুগে রিটেইল ম্যানেজারদের উপর প্রত্যেক কোম্পানি বা স্টোরই নির্ভর করছে। আর তাই, প্রতিনিয়তই কোম্পানিগুলোতে ম্যানেজমেন্ট ও রিসোর্স খাতে বিভিন্ন ধরণের ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ তৈরি হচ্ছে, যার মধ্যে সেলস পার্সন, রিটেইল ম্যানেজার, রিটেইল সুপারভাইজার, কোম্পানি সেক্রেটারি ইত্যাদি অন্যতম। রিটেইল ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়বেন যেসব কারণে,

১. প্রত্যেক কোম্পানিতেই বিভিন্ন কাজের জন্য রিটেইল ম্যানেজারের প্রয়োজন পড়ে।

২. এই খাতে কাজের শেষ নেই।

৩. এই কাজে প্রতিনিয়তই নতুন নতুন জিনিস শিখতে পারবেন ও নতুন নতুন মানুষের সাথে যোগাযোগ রাখতে পারবেন।

৪. নিজের ইচ্ছেমতো নিজের কাজকে সাজিয়ে তুলতে পারবেন।

৫. রিটেইল ম্যানেজার ও মার্কেটারদের ফোরামটাই অন্যরকম হয়। তাই কমিউনিটিতেও শেখার অনেক কিছুই থাকছে।

8 Comments

Leave a Reply
  1. I really wanted to compose a quick remark in order to say thanks to you for all the fantastic instructions you are giving on this site. My extensive internet investigation has at the end of the day been paid with good quality points to exchange with my great friends. I would tell you that we website visitors actually are unequivocally blessed to live in a wonderful place with so many outstanding professionals with beneficial tricks. I feel rather blessed to have encountered your entire site and look forward to really more brilliant times reading here. Thanks a lot once again for all the details.

  2. Thanks a lot for giving everyone an exceptionally superb chance to read from this blog. It’s usually very terrific plus packed with a good time for me personally and my office colleagues to visit your web site at a minimum thrice weekly to study the newest guides you will have. Of course, I’m just certainly impressed with your good principles you serve. Certain 1 areas in this post are basically the very best I’ve had.

  3. I would like to convey my love for your kindness giving support to individuals that really need assistance with in this matter. Your very own commitment to passing the solution around turned out to be extraordinarily interesting and has truly helped guys and women just like me to attain their goals. The important recommendations signifies this much to me and even more to my office colleagues. Regards; from all of us.

  4. I simply wished to thank you so much once more. I do not know what I would have created in the absence of the entire creative ideas provided by you concerning that question. It has been a real fearsome scenario in my opinion, nevertheless being able to view this professional mode you resolved that forced me to cry with gladness. I’m happier for your advice as well as wish you know what a powerful job you are doing educating most people all through your websites. Probably you’ve never encountered all of us.

  5. I simply had to say thanks all over again. I am not sure the things that I would have used in the absence of the entire creative ideas revealed by you about my situation. It had been an absolute traumatic difficulty for me, nevertheless taking a look at the very skilled fashion you handled it made me to jump over contentment. Now i’m thankful for this information and expect you really know what a powerful job you are putting in educating many people using your site. Probably you’ve never encountered all of us.

  6. Thanks a lot for providing individuals with an extraordinarily splendid chance to discover important secrets from here. It is usually so lovely and also jam-packed with a great time for me personally and my office acquaintances to search your web site particularly thrice in 7 days to find out the new secrets you have got. And of course, I’m certainly satisfied with the stunning creative ideas you give. Certain 1 facts in this posting are definitely the best I’ve had.

  7. Thanks for all your valuable hard work on this website. My daughter loves getting into internet research and it is easy to see why. Most of us notice all relating to the dynamic means you render reliable tips through this blog and therefore recommend response from visitors on this topic and my girl is in fact becoming educated a lot. Take advantage of the remaining portion of the new year. You have been conducting a glorious job.

  8. Thanks so much for giving everyone such a brilliant chance to discover important secrets from this blog. It really is so great and also full of a lot of fun for me personally and my office colleagues to search your blog at least thrice in a week to find out the fresh guidance you will have. And indeed, I am also at all times pleased with the sensational guidelines you serve. Certain 1 ideas in this post are unquestionably the finest we’ve ever had.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

বাংলায় আর্টিকেল লিখে আয় করুন (দ্বিতীয় ও শেষ পর্ব)

সাত উদ্যোক্তা যারা ভ্রমণকে ভালোবেসে, ব্যবসায় পরিণত করেছেন