Source: https://www.businessnewsdaily.com/7893-steps-before-business-plan.html
in

ব্যবসা খাতের আইটি সেক্টরে ক্যারিয়ার গড়ুন

অন্যান্য খাতের পাশাপাশি, ব্যবসাতেও আইটিতে ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব। ব্যবসা খাতে আইটিতে ক্যারিয়ার গড়ার পূর্বে ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা, অর্থনীতি, মার্কেটিং, কম্পিউটার সায়েন্স অথবা ফাইন্যান্স নিয়ে পড়াশোনা করতে হয়। আইটিতে ক্যারিয়ার গড়ার জন্য ব্যবসা খাতে অনেক ধরনের চাকরি রয়েছে। চলুন জেনে আসি এমন কিছু আইটির চাকরি সম্পর্কে, যেগুলো দ্বারা ব্যবসা খাতেও ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব।

বিজনেস অ্যানালিস্ট

ব্যবসা খাতে, একজন বিজনেস অ্যানালিস্ট মূলত একটি কোম্পানির শেয়ারহোল্ডার, ইনভেস্টমেন্ট, ইন্ডাস্ট্রি এনভায়রনমেন্ট, ডিজাইন, স্ট্রাকচার, মার্কেটিং প্ল্যান ইত্যাদি সম্পর্কে গবেষণা করে থাকেন। একজন বিজনেস অ্যানালিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে আপনাকে যেসকল বিষয়গুলোতে দক্ষ হতে হবে, সেগুলো হচ্ছে,

  • টিম ম্যানেজমেন্ট এবং টিম ওয়ার্কের মাধ্যমে যোগাযোগ ও কাজ করানোর দক্ষতা থাকতে হবে।
  • ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন, সফটওয়্যার, টুলস সম্পর্কে দক্ষ হতে হবে।
  • পাইথন, শেল স্ক্রিপ্টিং ও আর ভাষা সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে।
  • ক্লায়েন্ট হ্যান্ডেলিং ও বিজনেস মডিউল প্ল্যানিং সম্পর্কেও যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে।
  • রিস্ক ম্যানেজমেন্ট ও রিস্ক কন্ট্রোলের উপর জ্ঞান থাকতে হবে।
  • বিভিন্ন কোম্পানির অভ্যন্তরীণ অবস্থার উপর ভিত্তি করে অ্যানালাইসিস করার মতো দক্ষতা থাকতে হবে।
  • ইন্টারনাল ও এক্সটারনাল মার্কেটিং, ক্লায়েন্ট প্রেজেন্টেশন, বিজনেস স্টিমুলেশন অ্যাটাক সম্পর্কে পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

মার্কেট ডেভেলপমেন্ট এন্ড ইনসাইটস অ্যানালিস্ট

ব্যবসা খাতে, একজন মার্কেট ডেভেলপমেন্ট এন্ড ইনসাইটস অ্যানালিস্ট মূলত একটি কোম্পানির মার্কেটিং বিভাগের দায়িত্বে থাকেন। একজন মার্কেট ডেভেলপমেন্ট এন্ড ইনসাইটস অ্যানালিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে আপনাকে যেসকল বিষয়গুলোতে দক্ষ হতে হবে, সেগুলো হচ্ছে,

  • ট্র্যাফিক এনগেজমেন্ট  ও ট্যাফিক জেনারেশন সম্পর্কে পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • মার্কেট ডেটা অ্যানালাইসিস, তথ্য ও ইনসাইটসের উপর গবেষণা করার পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • কম্পিটেটিভ, প্রায়র ও অপরচুনিটি অ্যানালাইসিস সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে।
  • মার্কেট ডিজাইন, স্ট্রাকচার ও প্র্যাকটিক্যাল সিচুয়েশন হ্যান্ডলিং করায় দক্ষ হতে হবে।
  • প্রব্লেম সল্ভিং ও অ্যানালিটিক্যাল থিংকিং করার ক্ষমতা থাকতে হবে।
  • লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেমের সাথে পরিচিতি থাকতে হবে।
  • বেসিক কম্পিউটার দক্ষতা (যেমন, মাইক্রোসফট অফিস স্যুইট, অ্যাডোবি সফটওয়্যার ইত্যাদি) থাকতে হবে।
  • মার্কেট ডেভেলপমেন্ট ও মার্কেট রিসার্চের জন্য যেসব সফটওয়্যার ব্যবহৃত হয়, সেগুলো সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে।

বিজনেস ডেটা সায়েন্টিস্ট

ব্যবসা খাতে, একজন বিজনেস ডেটা সায়েন্টিস্ট মূলত একটি কোম্পানির ডেটা ও ইনফরমেশন বিভাগে কাজ করে থাকেন। একজন বিজনেস ডেটা সায়েন্টিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে আপনাকে যেসকল বিষয়গুলোতে দক্ষ হতে হবে, সেগুলো হচ্ছে,

  • ট্রান্সপারেন্ট, কনসিস্টেন্ট ও কম্প্রিহেনসিভ রিস্ক ম্যানেজমেন্ট সম্পর্কে ৩ থেকে ৬ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • স্ট্র্যাটেজিক বিজনেস অ্যানালাইসিস, ডেটা সায়েন্স, ডেটা অ্যানালাইসিস, ফ্রড, সাইবার সিকিউরিটি, ভ্যালিডেশন ইত্যাদি সম্পর্কে সম্মক ধারণা থাকতে হবে।
  • ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত, সফটওয়্যার ডিজাইন, মেইনটেইন ও ডেভেলপ করার দক্ষতা থাকতে হবে।
  • ম্যাক, লিনাক্স ও ইউনিক্স অপারেটিং সিস্টেমে কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • ইনিশিয়াল প্রোগ্রামিংয়ে দক্ষ হতে হবে।
  • ব্যবসায়িক অবস্থান সফটওয়্যার ও প্রোগ্রামের দ্বারা আপডেট, নিয়ন্ত্রন ও ব্যবস্থাপনা করার দক্ষতা থাকতে হবে।
  • গ্রাহকের পছন্দমতো সফটওয়্যার ও পণ্যের প্রোগ্রাম তৈরির দক্ষতা থাকতে হবে।
  • জাভা, সি শার্প, পাইথন ও স্ক্যালা প্রোগ্রামিং ভাষায় যথেষ্ট দক্ষ হতে হবে।

ইকমার্স স্পেশালিষ্ট

ব্যবসা খাতে, একজন ইকমার্স স্পেশালিস্ট মূলত একটি কোম্পানির অনলাইন বিজনেস বিভাগের দায়িত্বে থাকেন। একজন ইকমার্স স্পেশালিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে আপনাকে যেসকল বিষয়গুলোতে দক্ষ হতে হবে, সেগুলো হচ্ছে,

  • মার্কেটিং রিসার্চ, পারফরম্যান্স অ্যানালাইসিস ও স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যানিংয়ের উপর কমপক্ষে ৪ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • পাইথন, আর, এসএএস, লার্জ স্কেল কম্পিউটিং এবং প্রোগ্রাম মডেলিংয়ের উপর যথেষ্ট দক্ষতা থাকতে হবে।
  • ডিজিটাল মার্কেটিং চ্যানেলিং ও ইকমার্স ডিজাইনিংয়ের উপর পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • এসকিউএল, এসএএস ও ডেটা ম্যানেজমেন্ট সফটওয়্যার থেকে ডেটা ড্রাইভিং ও ডেটা সংরক্ষণে দক্ষতা থাকতে হবে।
  • প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট, অ্যানালিটিক্যাল থিংকিং ও প্রব্লেম সলভিংয়ের জ্ঞান থাকতে হবে।
  • মাইক্রোসফট অফিস স্যুইটের উপর পারদর্শী হতে হবে।
  • ট্যাব্লিউ, এসকিউএল কোডিং ও অ্যাইল কোডিংয়ে দক্ষ হতে হবে।

এসইও অ্যানালিস্ট

ব্যবসা খাতে, একজন এসইও অ্যানালিস্ট মূলত একটি কোম্পানির মার্কেটিং ও অ্যাডভার্টাইজমেন্ট বিভাগে কাজ করে থাকেন। একজন এসইও অ্যানালিস্ট হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে আপনাকে যেসকল বিষয়গুলোতে দক্ষ হতে হবে, সেগুলো হচ্ছে,

  • বিভিন্ন কোম্পানির ওয়েবসাইট ও অ্যাপ্লিকেশনে সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশনে করার পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • এসইও কোডিং ও এসইও কনটেন্ট সম্পর্কে দক্ষ হতে হবে।
  • ইউজার এক্সপেরিয়েন্সের উপর নির্ভর করে এসইও করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • এসইও, এসইএম, গুগল ট্রেন্ড, গুগল আপডেট ও সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংয়ে দক্ষ হতে হবে।
  • রিসার্চিং, টেস্টিং ও  অ্যানালাইসিস করার দক্ষতা থাকতে হবে।
  • ডেটা ড্রাইভেন এসইও ও এর কোডিং করা সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে।
  • দলগতভাবে কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

টেকনিক্যাল প্রোগ্রাম ম্যানেজার

ব্যবসা খাতে, একজন টেকনিক্যাল প্রোগ্রাম ম্যানেজার মূলত একটি কোম্পানির টেকনিক্যাল ও স্ট্র্যাটেজিক প্ল্যানিং, রিসার্চিং, অ্যানালাইসিসের কাজ করে থাকেন। একজন টেকনিক্যাল প্রোগ্রাম ম্যানেজার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে আপনাকে যেসকল বিষয়গুলোতে দক্ষ হতে হবে, সেগুলো হচ্ছে,

  • মেশিন লার্নিং ও আর প্রোগ্রামিং ভাষায় দক্ষ হতে হবে।
  • সফটওয়্যার ও পণ্যের ডিজাইন এবং ডেভেলপমেন্টের উপর দক্ষতা থাকতে হবে।
  • এন্ড টু এন্ড সফটওয়্যার আর্কিটেকচার বিল্ডিং, ম্যানেজিং প্রোগ্রাম প্রসেসিং ও ডেটা ড্রাইভেন কোডিংয়ের উপর সম্যক ধারণা থাকতে হবে।
  • লিনাক্স, ইউনিক্স ও উইন্ডোজ সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকতে হবে।

সেলস ইঞ্জিনিয়ার

ব্যবসা খাতে, একজন সেলস ইঞ্জিনিয়ার মূলত একটি কোম্পানির মার্কেটিং ও সেলস বিভাগের দায়িত্বে থাকেন। একজন সেলস ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে আপনাকে যেসকল বিষয়গুলোতে দক্ষ হতে হবে, সেগুলো হচ্ছে,

  • কোঅর্ডিনেট ও রিপিট সেলস সম্পর্কে কমপক্ষে ৩ থেকে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।
  • ক্লায়েন্ট জেনারেট ও ক্লায়েন্ট প্রডিউসিং সম্পর্কে যথেষ্ট দক্ষতা থাকতে হবে।
  • কাস্টমার, পার্টনার ও টিমের সাথে টেকনিক্যাল ও নন-টেকনিক্যাল ভাষায় যোগাযোগ করার দক্ষতা থাকতে হবে।
  • এনকোয়ারি হ্যান্ডলিং, মার্কেট ডিজাইন, সেলস প্রডিউসিং সম্পর্কে সম্মক ধারনা থাকতে হবে।
  • বেসিক কম্পিউটার দক্ষতা থাকতে হবে। একইসাথে, প্রোগ্রামিং, ক্লাউড সার্ভার ও ডেটা রিসার্চ সম্পর্কে জ্ঞান থাকতে হবে।

এছাড়াও, ব্যবসা খাতে আইটিতে ক্যারিয়ার গড়ার জন্য আরো অনেক ধরনের চাকরি রয়েছে। একেবারে বেসিক  কম্পিউটার দক্ষতা থাকলেও ব্যবসা খাতের আইটিতে ক্যারিয়ার গড়া সম্ভব।

One Ping

  1. Pingback:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

ব্যাংকিং খাতের আইটিতে ক্যারিয়ার গড়ুন

ল্যাপটপ কেনার পূর্বে যেসব বিষয় খেয়াল রাখবেন