Source: https://www.optuno.com/blog/how-to-choose-a-web-design-company
in ,

ওয়েব ডিজাইনার হিসেবে সফল হওয়ার ১০টি টিপস

বর্তমান বিশ্বে ওয়েবসাইটের ব্যবহার অনেক দ্রুত গতিতে বাড়ছে। কারণ, যারাই ইন্টারনেটের সাথে যুক্ত হচ্ছেন তারাই নিজের বা কোম্পানির জন্য চাহিদামতো ওয়েবসাইট তৈরি করছেন। কিন্তু শুধু ওয়েবসাইট তৈরী করলেই তো হবে না। ওয়েবসাইটের তথ্যকে সঠিকভাবে এবং আকর্ষণীয়ভাবে উপস্থাপন করার মাঝেই সাইটের সার্থকতা নির্ভর করছে। একজন ওয়েব ডিজাইনারকে, তথ্যবহুল করে একটি ওয়েবসাইট ডিজাইন করার সময় অনেক কঠিন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হতে হয়।

এই পোস্টে আজকে আমি ১২ টি টিপস নিয়ে কথা বলবো, যেগুলো আয়ত্ত্ব করতে পারলে আপনি নিজেকে একজন সফল ওয়েব ডিজাইনার হিসেবে গড়ে তুলতে পারবেন।

১. যোগাযোগের দক্ষতা গড়ে তুলুন

প্রোগ্রামার এবং প্রযুক্তির সাথে যারা যুক্ত তাদের সাথে, যাদের ভালো যোগাযোগের দক্ষতা আছে তারা প্রায় সকল ক্ষেত্রেই সফলতা অর্জন করে। ওয়েব ডিজাইন এমন একটা ক্ষেত্র যেখানেও এটা ব্যতিক্রম নয়। ওয়েব ডিজাইনারদের জন্যে যোগাযোগের দক্ষতা অনেক বেশি জরুরী।  গ্রাহক, ওয়েব ডিজাইনার এবং ওয়েব প্রোগ্রামার  সকলের সমন্বয়েই একটি অসাধারণ ওয়েবসাইট গড়ে উঠে।

প্রথমে একজন গ্রাহক ওয়েব ডিজাইনারকে পুরো ওয়েবসাইটের খসড়া করে দেবেন। তারপর, একজন ওয়েব ডিজাইনার সেই ওয়েবসাইটের ডিজাইন করবেন। সর্বশেষে একজন ওয়েব প্রোগ্রামার বা ডেভেলপার সেই ওয়েবসাইটের কোডিং করবেন। আর এভাবেই একটি নতুন ওয়েবসাইট তৈরি হবে। সবার মধ্যে যদি যোগাযোগ দক্ষতা না থাকে তাহলে, কোনোভাবেই এই কাজ সফলভাবে সম্পূর্ণ করা সম্ভব হবে না।

২. মূল কনটেন্টের আলোচনা সংক্ষিপ্ত আকারে প্রকাশ করার চেষ্টা করুন

যেকোনো ওয়েবসাইটের কনটেন্টকে মূলত সেই ওয়েবসাইটের প্রাণ বলা হয়। কারণ, ওয়েব কনটেন্ট দ্বারা আপনার গ্রাহকের কাছে সঠিক তথ্যটি আপনি পৌঁছাতে পারবেন। কিন্তু যেকোনো ওয়েবসাইটের মূল কনটেন্টের আলোচনা অবশ্যই সংক্ষিপ্ত করতে হবে। অপ্রয়োজনীয় এমন কোনো তথ্য যা আপনার গ্রাহককে বিরক্তির মুখে ফেলে, তা তুলে না ধরাই ভাল।

এতে হিতে বিপরীত হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তাই, আপনার ওয়েব কনটেন্টের আলোচনা সংক্ষিপ্ত করে এবং একইসাথে প্রাসঙ্গিক ছবি যুক্ত করে দিলে কনটেন্টটি আরো আকর্ষণীয় দেখাবে। বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই ছবি আপনার ওয়েবসাইটকে আর সুন্দর করে তোলে। আবার অনেক সময় তা বিরক্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়। কেননা অধিক মাত্রায় ছবির ব্যবহার ওয়েবসাইটকে ধীরগতির করে তোলে।

৩. ওয়েবসাইট ডিজাইন করার পূর্বে পরিকল্পনা করুন

প্রথমেই ঠিক করতে হবে আপনার ওয়েবসাইটের উদ্দেশ্য কী? আপনার ওয়েবসাইট কোন কাজের জন্য ব্যবহৃত হবে? তারপর সেই উদ্দেশ্যের উপর ভিত্তি করেই ওয়েবসাইট ডিজাইন শুরু করতে হবে। যেমনঃ ওয়েবসাইটটি দ্বারা আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের আকৃষ্ট করতে চান, তাহলে ওয়েবসাইটের ডিজাইনের উপর মূল লক্ষ্য দেবেন। আবার, আপনার ওয়েবসাইটটি যদি পর্যটকদের জন্য হয়, তাহলে আপনার ওয়েব ডিজাইনটি হতে হবে নান্দনিক ও চমৎকার।

তবে সব ক্ষেত্রে দৃষ্টিনন্দন ডিজাইন দ্বারা আপনি ব্যবসায় সফলতা পাবেন না। সুন্দর ডিজাইন শুধুমাত্র দৃষ্টি কাড়তে পারে, কিন্তু ব্যবসায় সফলতা বয়ে আনতে পারে না। ওয়েবসাইট ডিজাইন করার সময় প্রাধান্য দেয়া উচিত ব্যবহারকারীদের চাহিদার উপর।

৪. আপনার ওয়েবসাইটে সার্চ বাটন যুক্ত করুন

একটি ওয়েবসাইট আপনি যেভাবে ডিজাইন করবেন, ঠিক সেই ডিজাইন অনুসারেই একজন ওয়েব ডেভেলপার ওয়েবসাইট তৈরী করবেন। সেজন্যে, আপনার জানা উচিত যে, একটি ওয়েবসাইটের জন্যে ট্যাগলাইন ও সার্চ বাটন দুটোই খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  একটি ওয়েবসাইটের প্রধান লক্ষ্য থাকা উচিত যাতে তার ব্যবহারকারীদের কোনো সমস্যা না হয়।

ব্যবহারকারীরা প্রায়ই বিভিন্ন পোস্ট বা তথ্য আপনার ওয়েবসাইটে এসে সার্চ করবেন। এক্ষেত্রে যদি আপনার ওয়েবসাইটে সার্চ অপশনটি না থাকে, তাহলে ব্যবহারকারীদের সার্চ ইঞ্জিন থেকে অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে সেই তথ্য খোঁজা লাগবে এবং আপনার ওয়েবসাইটে পরবর্তীতে আর আসবে না। সুতরাং আপনার সাইটের একেবারে উপরের অংশে সার্চ অপশনটি রাখবেন।

৫. হোম পেজে যাওয়ার সুব্যবস্থা রাখুন

অনেক ওয়েবসাইটেই দেখা যায়, একটি পৃষ্ঠা থেকে অন্য পৃষ্ঠায় কিংবা মূল পৃষ্ঠায় যাওয়ার কোনো ব্যবস্থা থাকে না। শেষমেষ, ব্রাউজারের ব্যাক বাটন চেপেই যাওয়া লাগে। অনেক ব্রাউজারের ব্যাক বাটন থাকে না। সেসব ক্ষেত্রে হোম পেইজে যাওয়ার কোনো ব্যবস্থা নেই। এটা কখনোই করবেন না। এতে ব্যবহারকারীরা বিরক্ত হন। ওয়েবসাইটের গ্রাফিক্স, লোগো বা উপরের হেডলাইনের সাথে  হোম পেজের লিংক যুক্ত করে দিন, যাতে সবাই অন্য পৃষ্ঠা থেকে দ্রুত মূল পৃষ্ঠায় ফিরে আসতে পারে।

৬. বারবার ডিজাইন পরিবর্তন করা থেকে বিরত থাকুন

বার বার কোনো ওয়েবসাইটের ডিজাইন পরিবর্তন করা অনেক ব্যয়বহুল ও এটা সম্পূর্ণরূপে সময়ের অপব্যবহার। এছাড়াও ব্যবহারকারীরা একটি ওয়েবসাইটের ডিজাইনে অভ্যস্ত হয়ে গেলে, সেই ওয়েবসাইটকে রিডিজাইন করতে যাওয়া মানে, ব্যবহারকারীদের অনেকটা বিভ্রান্ত করে দেয়া।

শুধু তাই নয়, অনেক ক্ষেত্রেই, পুনরায় ডিজাইন করার কারণে আপনার টার্গেটেড মার্কেট নষ্ট হতে পারে এমনকি কপিরাইটের সমস্যায়ও পড়তে পারেন। সুতরাং, বড় ধরনের কোনো সমস্যা ছাড়া কোনো ওয়েবসাইটের রিডিজাইন করা থেকে বিরত থাকুন।

৭. কপিরাইট নোটিশ সংযুক্ত করুন

একটি ওয়েবসাইটের কোড থেকে শুরু করে ডিজাইন, ছবি, ভিডিও, গ্রাফিক্স এবং আরো অনেক কিছুই কপি করা সম্ভব। সেক্ষেত্রে আপনার ওয়েবসাইটে কপিরাইট নোটিশ যুক্ত করুন। সাধারণত যেকোনো ওয়েবসাইটের নিচের দিকে কপিরাইট নোটিশ যুক্ত করতে হয়। ওয়েব ডিজাইনারদের জন্য এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

কেননা, আপনার ওয়েবসাইটে যদি কপিরাইট নোটিশ দেয়া থাকে, তাহলে অন্য কেউ যদি আপনার ওয়েবসাইট থেকে কোনো কনটেন্ট বা আর্টিকেল অথবা যেকোনো কিছু কপি করে তাহলে আপনি এর প্রতিবাদস্বরূপ অভিযোগ করতে পারবেন এবং তার বিরুদ্ধে যেকোনো আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন।

৮. সহজে পাঠ করা যায় এমন ওয়েব পেইজ তৈরি করুন

একটি ওয়েব পেজ যদি সহজ পাঠ্য না হয়, তাহলে ব্যবহারকারীরারা সেখানে যাবেন না। কেননা, ওয়েবসাইট ভিজিটররা কখনোই আপনার ওয়েব পেইজের প্রতিটি শব্দ পড়বে না। সেজন্যে কম কথায় মূল বিষয়বস্তু তুলে ধরতে হবে। ওয়েবসাইটের কনটেন্টের প্যারাগ্রাফগুলোর দিকে বিশেষ নজর রাখতে হবে। যেকোনো ওয়েবসাইটের আর্টিকেলের প্রথম দুই প্যারাগ্রাফই বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়।

অধিকাংশ ভিজিটর এর বেশি পড়েন না। আপনি যদি প্রথম পর্যায়ে পাঠকের মনোযোগ আকর্ষণ করতে না পারেন, তাহলে সে আর পড়ার আগ্রহ পাবে না। সুতরাং আপনাকে একটি সহজে পড়া যায়, এমন একটি ওয়েব পেইজ তৈরি করতে হবে।

৯. সহজে বোধগম্য হয় এমন নেভিগেশন মেন্যু তৈরি করুন

একটি নেভিগেশন মেন্যু আপনার ওয়েবসাইটের ৯৫ শতাংশ পেজের লিংক বহন করে (অভ্যন্তরীণ লিংক ছাড়া)। তাই ওয়েবসাইট ডিজাইন করার সময় আপনাকে অবশ্যই নেভিগেশন মেন্যু ডিজাইনের ব্যাপারে সবচেয়ে বেশি মাথা ঘামাতে হবে। একটি ওয়েবসাইটের নেভিগেশন মেন্যু যত বেশি বোধগম্য হবে, একজন ব্যবহারকারী তত সহজে আপনার ওয়েবসাইট সম্পর্কে জানতে পারবে। নেভিগেশন মেন্যু যাতে অতিরিক্ত রঙিন না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

১০. অভিজ্ঞতা অর্জন করুন

একজন ওয়েবসাইট ডিজাইনারের জন্য কাজের অভিজ্ঞতা খুব বেশি জরুরী। অনেক সময় অনেক ভালো দক্ষতা দেখেও গ্রাহক সন্তুষ্ট হননা, অভিজ্ঞতাকে তারা বেশি পছন্দ করেন। আপনি কয়টি ওয়েবসাইট তৈরি করেছেন, কাদের সাথে কাজ করেছেন, কতক্ষণ কাজ করতে পারেন, বড় কোনো কোম্পানীর ওয়েবসাইট তৈরি করেছেন কিনা, কোন ধরনের প্রজেক্ট এখন পর্যন্ত সম্পন্ন করেছেন, এসবই আপনার অভিজ্ঞতা।

9 Comments

Leave a Reply
  1. I truly wanted to post a quick message in order to say thanks to you for these unique guides you are giving at this website. My particularly long internet investigation has at the end been honored with pleasant information to share with my company. I would suppose that most of us readers are undeniably fortunate to exist in a really good community with so many marvellous individuals with helpful advice. I feel very grateful to have discovered your entire webpage and look forward to some more cool times reading here. Thank you again for everything.

  2. I have to show appreciation to you for bailing me out of this incident. Just after browsing through the search engines and obtaining opinions which were not powerful, I thought my life was done. Existing without the presence of solutions to the issues you’ve fixed through the article is a critical case, as well as ones which could have in a negative way affected my career if I hadn’t come across your blog post. Your main competence and kindness in playing with every aspect was very helpful. I’m not sure what I would have done if I had not come upon such a thing like this. I’m able to now relish my future. Thank you very much for this specialized and result oriented help. I won’t hesitate to refer your web site to anyone who ought to have care about this topic.

  3. A lot of thanks for your whole labor on this blog. My daughter delights in making time for investigations and it is simple to grasp why. A lot of people notice all relating to the dynamic medium you give insightful tips through your website and in addition increase participation from other people on the concern plus our daughter has been understanding so much. Take advantage of the remaining portion of the new year. Your performing a good job.

  4. Thanks a lot for providing individuals with remarkably special chance to read in detail from this website. It’s always very pleasant plus jam-packed with fun for me and my office co-workers to search your web site really three times a week to find out the new guides you have got. And of course, we’re actually astounded with the staggering information you give. Certain 2 points on this page are completely the very best we have had.

  5. I wish to point out my passion for your generosity in support of all those that need help on this important concern. Your very own commitment to getting the message around became certainly important and has helped workers like me to arrive at their desired goals. Your personal warm and friendly hints and tips indicates a lot to me and especially to my office workers. Thanks a lot; from all of us.

  6. I must show some thanks to you just for bailing me out of such a circumstance. Right after researching throughout the internet and getting recommendations which are not pleasant, I was thinking my life was over. Living minus the approaches to the issues you have sorted out by way of your blog post is a serious case, as well as the ones which may have negatively damaged my entire career if I had not encountered your blog. Your personal understanding and kindness in handling every part was priceless. I’m not sure what I would have done if I had not encountered such a point like this. I’m able to now look forward to my future. Thanks so much for this expert and effective help. I will not hesitate to endorse your blog to anyone who requires direction about this situation.

  7. I really wanted to post a brief remark to appreciate you for the fabulous tips and tricks you are writing at this website. My particularly long internet search has at the end of the day been honored with awesome details to share with my best friends. I ‘d state that that many of us readers are definitely fortunate to dwell in a notable community with so many perfect people with very helpful strategies. I feel really blessed to have seen your entire site and look forward to many more brilliant moments reading here. Thank you once again for everything.

  8. I am also commenting to make you understand what a fine discovery our princess had visiting the blog. She mastered plenty of details, most notably what it is like to have an amazing coaching spirit to make folks with no trouble fully grasp some complicated issues. You really did more than our expected results. Thank you for distributing those practical, trustworthy, educational and even easy guidance on that topic to Evelyn.

  9. I have to voice my passion for your kind-heartedness supporting individuals who need assistance with the niche. Your personal dedication to getting the message across has been astonishingly interesting and has surely made guys much like me to achieve their objectives. Your own invaluable guidelines entails a great deal to me and somewhat more to my fellow workers. With thanks; from each one of us.

One Ping

  1. Pingback:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

স্টার্টআপ তৈরি করার পূর্বে ব্যবসা সংক্রান্ত যে ১০ টি পরিভাষা জানা জরুরি

ব্ল্যাক ম্যাজিক (চতুর্থ ও শেষ পর্ব)